জঙ্গলের মধ্যে প্রায় ২০০ টি বি’ষাক্ত কো’বরা সা’প ছেড়ে দিলেন যুবক! তার পরেই ঘটল বি’পত্তি! মুহূর্তে ভাইরাল ভিডিও।

আমাদের আশেপাশে এমন বহু মানুষ রয়েছে যাদের জীবন এবং জীবিকা নির্ভর করছে সাপ উদ্ধার করাকে কেন্দ্র করে। একদমই ঠিক শুনেছেন। যাদেরকে আমরা

স্থানীয় ভাষাতে সা-পুড়ে বলে থাকি। গ্রামে গঞ্জে এই সমস্ত সাপুড়ের দেখা মেলে অনেক। তাদের মধ্যে বেশিরভাগ মানুষ অভিজ্ঞতা সম্পন্ন হয় না অর্থাৎ প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত হয় না। কিন্তু

আশেপাশে এমন বহু সা-পুড়ে রয়েছে যারা কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত এবং এই ধরনের কাজকর্ম করার জন্য অতি অবশ্যই প্রশিক্ষণের দরকার। নইলে যে কোন মুহূর্তে আপনার জী-বন

ঝুঁ-কির মধ্যে পড়তে পারে। উড়িষ্যা একটি বিখ্যাত সাপুড়ে রয়েছে যার নাম মির্জা মোহাম্মদ আরিফ। তার চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা এই মুহূর্তে লক্ষাধিক। প্রতিটি ভিডিওতে কমপক্ষে ৫ লক্ষ থেকে

সাত লক্ষ দর্শক উপস্থিত হয়। প্রতিনিয়ত তিনি সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করে চলেছেন। তার পাশাপাশি যে সমস্ত জায়গায় বিষাক্ত সাপ দেখতে পাওয়া যায় সে সমস্ত জায়গা থেকে উদ্ধার করেন তিনি।

সম্প্রতি তিনি প্রকাশ করেছেন সেটি বাকি সকল ভিডিও থেকে কিছুটা হলেও আলাদা ।এই ভিডিও সাপ উদ্ধার এর নয় বরং সবগুলিকে জঙ্গলে মুক্ত করার ভিডিও। সম্প্রতি একটি ভিডিও

প্রকাশিত হয়েছে ইউটিউবে সেখানে দেখা যাচ্ছে যে মির্জা মহাম্মদ আরিফ একটি বালতির মধ্যে কমপক্ষে ২00 বা তারও অধিক কোবরা সাপের বাচ্চা কে জঙ্গলে মুক্ত করছেন। তার পাশাপাশি তিনি বলেছেন যে এই সমস্ত শরীর থেকে ভয় পাবার কোন কারন নেই।

যেহেতু এগুলি ছোট তাই এদের শরীরে কোনো রকম বিষ থাকে না তবুও এরা প্রচন্ড পরিমানে কামড় দেওয়ার চেষ্টা করে সামনে থাকা মানুষকে। কিন্তু কামড় দিলেও শরীরের মধ্যে কোন ক্ষতি হবে না। তার সাথে সাথে তিনি সেই সমস্ত সাপ গুলিকে সেই গভীর জঙ্গলে নিরাপদে মুক্ত করে দিচ্ছে। ইতিমধ্যে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে নেট দুনিয়াতে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*