বিমানবালার স্টাইলে ধরা দিলেন পরী

ঢালিউডের রূপসী রমণী এবং হাজারো পুরুষের হৃদয়েরর রানী পরীমনি।৬ বছর ধরেই তিনি মুগ্ধ

করে রেখেছেন চলচ্চিত্রপ্রেমীদের।জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী রবিবার ৩০ বছর পা দিলেন।

রবিবার (২৪ অক্টোবর) জন্মদিনের প্রথম প্রহর থেকেই বিভিন্ন তারকারা তাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা

জানিয়েছেন।সেইসাথে দেশ-বিদেশ জুড়ে পরীর ভক্তরাও দিনটিকে প্রিয় অভিনেত্রীর জন্য উৎসর্গ করেছেন।

এদিকে নিজের জন্মদিনের দিনটা পরিবারের সঙ্গে একান্তেই কাটিয়েছেন পরীমনি। যে সময় চলে গেছে,

তাও খুবই গুরুত্বপূর্ণ পরীমনির কাছে। সেই সময় তিনি যে ভালবাসা, আদর পেয়েছেন তার বন্ধু-বান্ধব, ভক্তদের কাছ থেকে, তা তিনি সবসময়ই মনে রাখবেন।

১৯৯২ সালের ২৪ অক্টোবর পরীমনির জন্ম হয়েছিল সাতক্ষীরায়। তার প্রকৃত নাম শামসুন্নাহার স্মৃতি। পরীর বাবার নাম মনিরুল ইসলাম, মা সালমা সুলতানা। মাত্র তিন বছর বয়সে নায়িকা তার মাকে হারান। এরপর পিরোজপুরে নানা শামসুল হক গাজীর কাছে বড় হন তিনি। বর্তমানে সেই নানাই পরীর সবকিছু।

অভিনয় জগতে প্রতিষ্ঠা পাওয়ার পর থেকে প্রতিটি জন্মদিনে নানা শামসুল হক গাজীকে সঙ্গে নিয়েই পরীমনিকে কেক কাটতে দেখা গেছে। ৩০তম জন্মদিনেও তার ব্যতিক্রম হয়নি। শনিবার দিবাগত রাতের প্রথম প্রহরেই নানাকে নিয়ে কেক কাটেন তিনি। রাতের প্রথম প্রহরের এ উৎসবে কয়েকজন কাছের মানুষ ছাড়াও হাজির ছিলেন নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরীও।এরপর দুপুর ও বিকেলে রাজধানীর কয়েকটি এতিম খানায় সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের সঙ্গে সময় কাটান এবং তাদের সঙ্গে জন্মদিনের কেকও কেটেছেন পরীমনি।

সবশেষে পরীমনি রবিবার রাতে রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে জন্মদিনের উৎসব পালন করেন। সেখানে জন্মদিনের পার্টিতে এদিন রাতে পরী ধরা দিলেন নারী বিমানবালা স্টাইলে।পরনো লাল রঙের ড্রেস মাথায় সাদা রঙের পাগড়ি পড়া।

সম্প্রতি পরীমনি গিয়াস উদ্দিন সেলিম পরিচালিত ‘গুনিন’ সিনেমার শুটিংয়ের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ছিলেন পরীমনি। জন্মদিন পালনের জন্য সেখান থেকে দু’দিনের ছুটি নিয়ে ঢাকায় আসেন।এখনও তিনি ঢাকায়। এর আগে গত বছর শাহবাগে অবস্থিত হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে জন্মদিনের পার্টির জমকালো আয়োজন করেছিলেন পরীমনি। তার আগের বছর পরীমনির জন্মদিনের পার্টি হয়েছিল হোটেল সোনারগাঁয়ে। সেখানেও আয়োজনের কোনো ঘাটতি ছিল না।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*