ফেলে দেয়া মোবাইল থেকে জমছে কোটি টাকার স্বর্ণ ব্যবসা

স্মার্টফোন হোক বা ফিচার ফোন, সব ধরনের মোবাইলেই থাকে স্বর্ণের প্রলেপ। আর অনেকগুলো ন’ষ্ট মোবাইল একসাথে সংগ্রহ করে

রাতারাতি বনে যেতে পারেন স্বর্ণ ব্যবসায়ী। আষাঢ়ে গল্প মনে হলেও, বাস্তবে ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এভাবেই কোটি কোটি টাকার ব্যবসা জমে উঠছে। মূলত, সব মোবাইল ফোনেই

স্বর্ণ থাকে। পাশাপাশি রুপা, তামাও লাগে মোবাইল ফোন তৈরির ক্ষেত্রে। স্বর্ণ বিদ্যুতের সুপরিবাহী। সেই সাথে এর ক্ষ’য় হয় না, মরিচাও ধরে না। এই কারণেই মোবাইল ফোনের ইন্টিগ্রেটেড সারকিট (আইসি) বোর্ডের

ছোট্ট কানেক্টারগুলিতে স্বর্ণ ব্যবহৃত হয়। এটা ঠিক যে খুবই সামান্য সোনা থাকে। কিন্তু অনেক বাতিল ফোন থেকে অনেক সামান্য মিলে বড় পরিমাণে সোনা সংগ্রহ হয়। এক একটি ফোনে ৩৪ থেকে

৫০ মিলিগ্রাম পর্যন্ত স্বর্ণ থাকে। সেই হিসাবে, ৪১টি মোবাইল ফোন থেকেই ১ গ্রাম স্বর্ণ পাওয়া যায়। টাকার হিসেবে যার মূল্য ৬ হাজার ২০০ টাকারও বেশি। আর এভাবেই বিশ্বে প্রতি বছর বাতিল মোবাইল ফোন থেকে

চার হাজার কোটি টাকার স্বর্ণ পাওয়া যায়। মোবাইল ফোনের মতো, স্বর্ণ কম্পিউটার ও ল্যাপটপের আইসিগুলিতেও ব্যবহৃত হয়। আর এভাবেই বাতিল মোবাইল, ল্যাপটপ ইত্যাদি দিয়ে চলে বড় আর্থিক অঙ্কের কারবার।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*