ছেলের লেখা পড়ার জন্য নিজের শেষ সম্বল বাড়িটাকেও বিক্রি করেছিলেন বাবা-মা, আইপিএস অফিসার হয়ে বাড়ি কিনলেন সেই ছেলে

ইউপিএসসি পরীক্ষাকে আমাদের দেশের সবচেয়ে কঠিন পরীক্ষা হিসাবে মানা হয়। যেখানেই পরীক্ষাটি তিনটি পর্যায়ে পরিচালিত হয়

যে সকল পরীক্ষার্থী পাস করেন, তারা grade-a পরিষেবা দেবার জন্য নির্বাচিত হন, যেমন কালেক্টর, এসপি, গেজেটেড অফিসার। ইউপিএসসি পরীক্ষা পাস করতে গেলে করতে হয়

কঠোর পরিশ্রম সাথে পড়াশোনা। ছোটবেলা থেকেই বরাবরই মেধাবী ছাত্র ছিলেন প্রদীপ। পড়াশোনা নিয়ে বরাবরই তার আগ্রহ। সালে জুন মাসে প্রদীপ ইউপিএসসি পরীক্ষার জন্য

দিল্লিতে গিয়েছিলেন কোচিং এর জন্য।সেই জন্য নিজের শেষ সম্বল বাড়িটি বিক্রি করে দেন বাবা। যদিও দিল্লিতে তিনি বাজিরাও

কোচিংয়ে পড়াশুনা শুরু করেন। প্রদীপ তার বাড়ির পরিস্থিতি ও

আর্থিক অবস্থা সম্পর্কে ভালোভাবে অবগত ছিল। কিন্তু তা সত্ত্বেও তার বাবা মা কখনো প্রদীপের পড়াশোনায় বাধা আসতে দেয়নি। ইউ পি এস সি পরীক্ষায় পাশ করবার পর তার সাফল্যের পিছনে তার বাবা-মায়ের অবদানকে তিনি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়েছিলেন।

তিনি বলেছিলেন ‘যে ফলাফলটি এসেছে সেটি তার বাবা-মায়ের কঠোর পরিশ্রম ও প্রার্থনার ফল’ ছেলে প্রদীপ কঠোর পরিশ্রম ও নিষ্ঠার সাথে তার বাবা মার যে স্বপ্ন পূরণ করেছে, বা বাবা-মায়ের যোগ্য সম্মান রেখেছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*