রান্নাঘরে লুকিয়ে ছিল বিশাল কোবরা সাপ, ধরতে গিয়ে ঘটল বিপত্তি, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

সোশ্যাল মিডিয়ায় আবার ভাইরাল সাপ ধরার ভিডিও। যা দেখলে ভয়ে গা শিউরে ওঠার জোগাড়। সাপ এমনিতেই

ভয়ানক একটি প্রাণী। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় সাপের ভিডিও খুবই জনপ্রিয়। কিন্তু

সামনা সামনি সাপ দেখলে শতহস্ত দূরে চলে যায় মানুষ। বর্ষাকালের প্রায়ই সাপের কামড়ে মৃত্যু ঘটে। কিন্তু

বর্তমান যুগে দাঁড়িয়েও গ্রামাঞ্চলের বহু মানুষ সাপের কামড়ের অব্যর্থ ওষুধ হিসেবে ওঝা এবং

ঝাড়ফুঁকেই বিশ্বাস করেন। সাপে কামড়ালে সবার আগে প্রয়োজন ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাওয়া। না হলে যেকোনো সময়

রোগীর মৃ’ত্যু ঘটতে পারে। সাপে কামড়ানোর পর খুব দেরি না করে সঙ্গে সঙ্গে তাকে যে কোন হাসপাতালে ভর্তি করা প্রয়োজন। ভাগ্য ভালো থাকলে তিনি অবশ্যই

বেঁচে যাবেন। তার জন্য প্রয়োজন চিকিৎসা। চিকিৎসার অভাবে বহু মানুষ সাপের কামড়ে অকারণে প্রাণ হারান। “নাগ লোক” নামক একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে, সাম্প্রতিক একটি ভিডিও পোস্ট করা হয়েছে।

ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, যে এক ব্যক্তি সাপ ধরতে গিয়ে কিভাবে বিপদের হাত থেকে রক্ষা পেলেন। ভিডিওটির প্রথমে দেখা যায়, এক ব্যক্তি সব ধরনের সব উপকরণ নিয়ে একটি গ্রামে যান।

সেখানে একটি বাড়ির ভিতরে লুকিয়ে বসে ছিল একটি বিষাক্ত কোবরা। ওই বাড়িতে প্রবেশ করার সময় আশেপাশে প্রচুর লোকজন দাঁড়িয়ে ছিল। তাদের সকলের হাতে সাপ ধরতে আসা ঐ ব্যক্তি একটি করে সার্জিক্যাল মাস্ক তুলে দেন।

কারণ সেই সময়ে করোনা আবহের কারণে যাতে সংক্রমণ ছড়িয়ে না পড়ে সেই জন্যই তিনি এই ব্যবস্থা গ্রহণ করেন। এরপর নিজের কাজে যান ওই ব্যক্তি। প্রবেশ করেন একটি রান্না ঘরের মধ্যে।

ঘরের মধ্যে জিনিসপত্র রাখার বেঞ্চের নিচে লুকিয়ে ছিল একটি বিশাল আকৃতির কোবরা। ওই সাপটিকে বের করতে গিয়ে হিমশিম খেতে হয় ওই ব্যক্তিকে। প্রথমে তিনি তার হাতে থাকা একটি ছিদ্রের লাঠি দিয়ে সাপটিকে ধীরে ধীরে বের করে আনেন।

এরপর সাপটিকে লাঠির মাধ্যমে তুলে নিয়ে বাড়ির বাইরে বেরিয়ে আসেন। সাপ ধরার দৃশ্য দেখতে প্রচুর জনসমাগম ঘটেছিল ওই বাড়ির আশেপাশে। এরপর বাড়ির উঠোনে সাপটিকে নামিয়ে দেন সাপ ধরতে আসা ওই ব্যক্তি।

হঠাৎ করে এই সাপটি তাকে ছোবল মারতে যায়। কিন্তু পারেনি।
এরপর ওই ব্যক্তি সাপটির বিশেষত্ব সম্পর্কে সকলকে বোঝান। তিনি বলেন, এটি কোবরা সাপ। এই সাপের বিষ খুবই মারাত্মক।
এই সাপ কামড়ালে বাচার আশা প্রায় থাকে না।

যদি এই সাপের কামড়ে মৃত্যু হয় তাহলে খুব দ্রুত পোস্টমর্টেম করিয়ে নেওয়া উচিত বলেই জানিয়েছেন ওই ব্যক্তি। যদি সাপের কামড়ে মৃত্যু হয় তাহলে সরকার থেকে ওই ব্যক্তির পরিবারকে টাকা দেওয়া হয় বলে জানান তিনি।যদি কখনো যেকোনো সাপে কামড়ালে সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতাল যেতে নিদান দেন ওই ব্যক্তি।

সাপটিকে ধরার পর তিনি একটি লাল রঙের ব্যাগে সাপটিকে বন্দি করে নেন। এরপর তিনি সাপটিকে নিয়ে চলে যান। “নাগ লোক” নামক ইউটিউব থেকে সাম্প্রতিক এই ভিডিও পোস্ট করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই ব্যাপক ভাইরাল হয়ে গিয়েছে এই ভিডিও। প্রায় ছয় হাজারের কাছাকাছি মানুষ ভিডিওটি দেখে নেওয়ার পাশাপাশি, প্রচুর সংখ্যক লাইক পড়েছে ভিডিওটিতে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন<<

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*