মাগরিবের নামাজ পড়া অবস্থায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন জাহাঙ্গীর

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার মসজিদে নামাজে সেজদারত অবস্থায় মো. জাহাঙ্গীর হোসেন (৫৫) নামের একজন মুসল্লি মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার মাগরিবের ওয়াক্তে

হাজীগঞ্জ পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ড টোরাগড় গ্রামের কাজী বাড়ি জামে মসজিদে জামায়াতে ফরজ নামাজের সেজদারত অবস্থায় তিনি মারা যান। মো. জাহাঙ্গীর হোসেন উপজেলার

গন্ধর্ব্যপুর উত্তর ইউপির মালিগাঁও গ্রামের মুকছুদ আলীর ছেলে। পেশায় তিনি সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালক। মসজিদের মুসল্লিরা জানান, মাগরিবের নামাজের ওয়াক্ত হলে জাহাঙ্গীর তার

অটোরিকশাটি সড়কের একপাশে রেখে মসজিদে প্রবেশ করেন। অটোরিকশার যাত্রীরাও তার সঙ্গে নামাজ পড়তে জামায়াতে শরীক হন। কিন্তু নামাজের শেষ রাকাতে সেজদায় গিয়ে

তিনি আর মাথা তুলে বসেননি। ইমাম ও মুসল্লিরা সালাম ফিরিয়ে নামাজ শেষ করলেও জাহাঙ্গীর সেজদাতেই ছিলেন। মসজিদের ইমাম মাওলানা মাহবুবুর রহমান বলেন, সালাম ফেরানোর পরও

ওই মুসল্লি সেজদারত অবস্থায়ই ছিলেন। ওই অবস্থায় মুসল্লিরা তাকে নাড়া দিলে তিনি এক পাশে ঢলে পড়েন। সবাই বুঝতে পারেন তিনি সেজদারত অবস্থায়ই মারা গেছেন। স্থানীয় কাউন্সিলর কাজী কবির হোসেন বলেন, মাগরিবের ফরজ তিন রাকাত নামাজ পড়াকালীন সময়ে সেজদারত অবস্থায় মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন ওই মুসল্লি।

পরিবারের লোকজন ঘটনাস্থলে এসে নিহতের মরদেহ নিয়ে যায়। তিনি জানান, জাহাঙ্গীর স্ত্রী, দুই ছেলে ও দুই মেয়ে রেখে মারা গেছেন। তিনি একজন ধর্মভীরু ও পরহেজগার ছিলেন। হাজীগঞ্জ থানার ওসি মোহাম্মদ হারুনুর রশিদের সঙ্গে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান, বিষয়টি জানা নেই। খোঁজ নেওয়া হচ্ছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*