বিছানার উপরে ঘাপটি মেরে বসে রইল বিশাল কোবরা, খোঁচা দিতেই ঘটলো বিপত্তি, ভিডিও ভাইরাল

বিষধর ও বিষহীন দু’রকম সাপই রয়েছে পৃথিবীতে। এমনকি কিছু কিছু সাপ রয়েছে, যারা মানুষের চোখে

বিষ ছোড়ে। শুনতে অবাক লাগলেও ঘটনাটি সত্যি। স্পিটিং কোবরা মানুষের চোখে বিষ ছোড়ে। কিন্তু

যদি রাতের অন্ধকারে ঘুমানোর সময় পাশে যদি কেউ শোনেন সাপের গর্জন?যদি কখনো দেখেন আপনার বেডরুমে ঢুকে আছে বিষাক্ত সাপ, তাহলে

আপনার অবস্থা কি হবে? সম্প্রতি এই ঘটনাটি ঘটেছে ওড়িশার একটি শহরে। গৃহবধূর কথায় রাত্রে শোয়ার সময়

সবাই শেষবার তাদের মোবাইলে চোখ বুলাচ্ছিলেন। তার স্বামী একটি খাটে শুয়ে ঘুমাচ্ছিলেন। এর মধ্যে তাদের মেয়ে

জল খেয়ে লাইট নিভিয়ে শুয়ে পড়লে হঠাৎই শুনতে পায় ঘরের কোনা থেকে অদ্ভুত একটি আওয়াজ আসছে। মাকে জানালে তিনি

ফ্ল্যাশ লাইট দিয়ে দেখেন একটি অদ্ভুত জিনিস হামাগুড়ি দিয়ে ঘোরাফেরা করছে। পরে

দেখা যায় সেটি বিষাক্ত সাপ। চিৎকার-চেঁচামেচি শুরু করলে সাপটি কাপড়ের মধ্যে ঢুকে যায়। মির্জা মহাম্মদ আরিফ প্রথমেই খাট সরিয়ে সাপটিকে বের করেন। কিন্তু সাপটি বিষাক্ত কোবরা প্রজাতির সাপ, রেগে গিয়ে ক্ষুব্ধ গর্জন করে সে বারবার মির্জাকে ছোবল মারতে থাকে।

এমনকি এক পর্যায়ে সে মির্জা চোখে বিষ ছোড়ে দেয়, মির্জার চোখ অসহ্য জ্বালায় জ্বলতে থাকে। তিনি চোখে জল দেওয়ার জন্য সকলের কাছে জল চাইতে থাকেন।

তবে তিনি বলেন এই জ্বলুনি জল দিয়ে,পরিষ্কার করলে অন্তত পনেরো-কুড়ি মিনিট বাদে সেরে যাবে।তিনি বলেন এই পরিবারটিকে ঈশ্বর নিজে আশীর্বাদ করেছে কারণ রাতের বেলায় যে কোন মুহূর্তে একটি বড় বিপদ হতে পারত,এই সাপের কাম-ড়ে কোন মানুষের বাঁ-চার সম্ভাবনা খুবই কম।

সেক্ষেত্রে তারা যে প্রাণে বেঁচে গেছে এটা সত্যিই ওপরওয়ালার আশীর্বাদ। তারপরই মির্জা অনেক চেষ্টায় সাপটিকে একটি নিরাপদ স্থানে ঢুকাতে সক্ষম হন।

তিনি সবাইকে বলেন রাত্রে শোয়ার আগে যেন সবাই অবশ্যই দরজায় মোজা রেখে ঘুমোতে যানতাহলে সাপ ভেতরে ঢুকতে পারবে না।

ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ার হয়ে গেছে ভাইরাল। হাজার হাজার মানুষ ভিডিওটি লাইক করেছে। বিশেষ করে এই ভিডিওটি অত্যন্ত শিক্ষামূলক।

কিভাবে সাপেদের সাবধানতার সঙ্গে মানানো উচিত, অথবা সাপ দেখলে আমাদের কি করনীয় সবই খুব সুন্দর ভাবে বুঝিয়ে দেন তিনি। মির্জা মহাম্মদ আরিফ এর এত সুন্দর কার্যকে জানাই কুর্নিশ। প্রকৃতির নিয়ম মেনে জীবজগতের চলা উচিত। কিন্তু বর্তমানে প্রকৃতির নানা অদ্ভুত ঘটনা চিন্তিত সবাই।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন<<

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*